যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ব্যাপক সহিংসতা, আটক ২০

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিটি ভোট গণনার দাবিতে নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে হাজারো মানুষের নির্বাচনী শোভাযাত্রা সহিংসতায় রূপ নিয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অন্তত ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে।

বুধবার (৪ নভেম্বর) সন্ধ্যার পর থেকেই ম্যানহাটনে ‘সব ভোট গণনা করা হোক’ ও ‘গণতন্ত্রের জয় হোক’-এমন স্লোগান নিয়ে এই শোভাযাত্রা বের করে হাজারো জনতা। তবে এই শোভাযাত্রায় নির্দিষ্ট কোনো প্রার্থীর পক্ষে স্লোগান ছিলো না।

রাত আটটার কিছু আগে ম্যানহাটনের ওয়াশিংটন স্কয়ার পার্ক এলাকার কাছাকাছি ওয়েস্ট ভিলেজে জো বাইডেনের একটি পোস্টারে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। এর পরেই পুরো এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। কিছুক্ষণ পর আরেক দল জনতা ওয়েস্ট ফোর্থ স্ট্রিট ও সিক্সথ অ্যাভিনিউয়ে সড়কের পাশে রাখা আবর্জনার স্তূপে আগুন ধরিয়ে দেয়। পুলিশ সড়ক থেকে তাঁদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে কয়েক দফা তাঁদের ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গ্রেফতার শুরু করে। রাত ১১টা পর্যন্ত ২০ জনকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

ফিফথ অ্যাভিনিউ ও ওয়েস্ট এইট স্ট্রিটেও একই ঘটনা ঘটে। নিউইয়র্ক পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ সমাবেশের প্রতি সম্মান দেখানো হবে। তবে সহিংসতা ও লুটপাটের কোনো লক্ষণ দেখা গেলেই দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এছাড়া অ্যারিজোনার মেরিকোপা কাউন্টির একটি ভোট গণনা কেন্দ্রের বাইরে রিপাবলিকান সমর্থক বিক্ষোভকারীরা অবস্থান নেয়ার পর ভোট গণনা বন্ধ করবে নাকি করবে না- এমন দ্বিধায় পড়েছে কর্তৃপক্ষ। ট্রাম্পের পক্ষে পড়া ভোট গণনা করা হবে না- সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন দাবি ছড়িয়ে পড়ার পর ট্রাম্পের সমর্থকেরা ভোট গণনা কেন্দ্রের বাইরে অবস্থান নেয়। অনেক বিক্ষোভকারী ভোটকেন্দ্রে ঢুকে পড়ার পর তাদেরকে আবার বাইরে বের করে আনা হয়। কর্তৃপক্ষ স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ডাকলেও গণনাকারীরা তাদের গণনা বন্ধ করেনি।

-সূত্র বিবিসি

dailykagojkolom.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।