সরিষাবাড়ীর সীমান্তবর্তী রায়ের ছড়ায় জমি দখলের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী রায়ের ছড়া সদারবাড়ী বাজারস্থ এলাকায় রাস্তার সাথে থাকা জমিতে ঘর তুলে জোর পূর্বক দখলের চেষ্টা করছে প্রভাবশালী প্রতিবেশীরা। এ ঘটনায় শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রায়েরছড়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ২ ছেলের নামে লিখে দেওয়া ৮শতাংশ জমি দীর্ঘদিন ধরে ভোগ দখল করে আসছিল। সেই জমিতে জোর পূর্বক দখল করে সেখানে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য ঘর তোলার চেষ্টা করছে ঐ এলাকার প্রবাব শালী মজিবর গংরা। গত ২ এপ্রিল সকালে জয়নাল আবেদীনের ছেলে শফিকুল ইসলাম ও মিলন মিয়া তাদের দখলে থাকা রায়ের ছড়া বাজারে ঐ ৮ শতক জমিতে মজিবর গংরা জোর পূর্বক ঘর তুলতে গেলে তারা বাধা প্রদান করে। এক পর্যায়ে মজিবর গংরা পুর্ব পরিকল্পিত ভাবে ১০-১৫জন ভাড়া করা সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে শফিকুল ইসলাম ও মিলন মিয়ার উপর হামলা করে। হামলায় শফিকুল ও মিলনসহ উভয় পক্ষের অন্তত ৮/৯জন আহত হয়। এ ঘটনায় একই দিন বিকেলে সফিকুল বাদী হয়ে শ্যামগঞ্জ পুলিশ ফাড়িতে মজিবরসহ ৫জনকে আসামী করে একটি অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযুক্ত মজিবর জানায়, জয়নাল আবেদীনের ছেলেদের এখানে কোন জমি নেই। ওদের জমি সব বিক্রি করেছে। ওরা বেআইনিভাবে এই জমি দখল করে ভোগ করতেছিল এতদিন। আমাদের কাছে জমির কাগজপত্র রয়েছে। সেই অনুপাতে আমরা জমিতে ঘর তুলতেছি। তাই জয়নালের ছেলেরা যতই বাধাঁ প্রয়োগ করুক কোন লাভ হবে না।

এ ব্যাপারে শ্যামগঞ্জ কালিবাড়ী পুলিশ তদন্তকেন্দের এসআই রুবেল হোসেন জানান, রায়েরছড়া সদারবাড়ী বাজারস্থ এলাকায় রাস্তার সাথে থাকা জমিতে জোর পূর্বক ঘর তুলে দখলের চেষ্টা করার ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। উভয় পক্ষকে তাদের স্ব স্ব জমির কাগজপত্র নিয়ে তদন্ত কেন্দ্রে আসতে বলেছিলাম, কেউ কাগজপত্র নিয়ে আসেনি। জমি জমার বিষয় নিয়ে পুলিশ কি করবে, এটা আদালতের বিষয়।

dailykagojkolom.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।