তারাকান্দি যমুনা সার কারখানা কো.লি. খন্ডকালিন ৬১ শ্রমিক বাতিল প্রতিবাদে বিক্ষোভ

 

– দেশের সর্ববৃহৎ ইউরিয়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জামালপুরের সরিষাবাড়ীস্থ তারাকান্দি যমুনা সার কারখানায় (জেএফসিএল) খন্ডকালিন ৬১ শ্রমিক বাতিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে।
সোমবার দুপুরে কারখানা এলাকার  শহীদ মিনার চত্তরে এ বিক্ষোভ কর্মসৃচি করেন ভুক্তভোগি শ্রমিকরা।
কারখানা ও ঠিকাদার সূত্রে জানাযায়ঃ- দীর্ঘদিন যাবৎ কারখানার দৈনিক মুজুরি ভিত্তিতে চুক্তি ভিত্তিক ৪শত ২৫জন এবং খন্ডকালিন ৬১জন শ্রমিক কাজ করে আসছিল। কিন্তু ২৯-০৮-২০২১ ইং তারিখে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স জান্নাত এন্টার প্রাইজ কে, কারখানার মহাব্যাবস্থাপক প্রশাসন মোহাম্মদ মঈনুল হক এর সাক্ষ্যরিত এক চিঠিতে বলা হয় বিশেষ অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষা কর্তৃক আপত্তি উথ্যাপিত হওয়ায় সম্পাদিত চুক্তি নামার ৮,৯,১০,১৬ ও ৩২ নং শর্ত এবং দরপত্র বিজ্ঞপ্তির ১৭,১৮,১৯,২৫ ও ৪১ নং শর্ত আগামী ১৫ দিনের মধ্যে  বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ এবং ( কাজ নাই ,মজুরি নাই ভিত্তিতে) চুক্তিবদ্ধ ৪২৫জন এর অতিরিক্ত কোন দৈনিক ভিত্তিক শ্রমিকের মজুরি প্রদানের আবেদন না করার জন্য অবহিত করা হয়। এবং  খন্ডকালিন ৬১ জনকে বাদ দিয়ে একটি তালিকা প্রকাশ করে।
তারপর থেকেই ঠিকাদার কারখানা কর্তৃপক্ষ্যের সাথে সমজোতার চেষ্টা করে এরই মধ্যে বিষয়টি শ্রমিকদের মাঝে প্রকাশ পেলে তারা এ বিক্ষোভ করেন।
এ বিষয়ে ঠিকাদার মোঃ সাখাওয়াত আলম (মুকুল) জানান, কারখানা কর্তৃপক্ষ্য আমার সাথে কোন আলোচনা না করেই ৬১ জন খন্ডকালিন  শ্রমিক বাদ দিয়ে দেয়। এতে কারখানায় বিভিন্ন বিভাগে দায়ীত্বে নিয়োজিত শ্রমিকদের প্রতি অমানবিক আচরণ করা হয়েছে। আমি এ সিদ্ধান্তকে দ্রুত বাতিলের দাবী জানাচ্ছি।

এ বিষয়ে কারখানার মহাব্যাবস্থাপক প্রশাসন মোহাম্মদ মঈনুল হক বলেন, দৈনিক মজুরি ভিত্তিক শ্রমিক রয়েছে ৪৮৬জন এর মধ্যে আমাদের অনুমোদন আছে ৪২৫ জন ,৬১ জন বেশি আর এই বেশিটা আমরা বাদ করে দিয়েছি। অনুমোদন যেটা আছে তার বাইরে আমরা যাইতে পাবো না। আগের ম্যানেজমেন্ট করছে কারা কি ভাবে করছে সেটা আমাদের জানা দরকার নাই কিন্তু আমাদের এখন ইনস্টাকশন আছে কোন ভাবেই ৪২৫ জনের বাইরে প্রেমেন্ট করতে পারবো না।
dailykagojkolom.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।