সাজ্জাদ সাঈফ-এর দু’টি কবিতা

সাজ্জাদ সাঈফ-এর দু’টি কবিতা

 

(১) পুত্রের অসুখ

স্পর্শের বাইরে থেকে অতুল কুহক ডাকে, জীবন গড়িয়ে নামে বিষাদ-গেলাস থেকে!

রহস্য থেকেই যায়, রহস্য কি রাবারের মতো? আগ্রহের টান পেয়ে কেন্দ্রীভূত?

যেন নিশিতোয়া গাছ, পাতাদের ডেকে
কথা বলে ঝুম-

কাছেই হাসপাতাল, জন্মকেও ভাষা দেয় নবজাতকের চিৎকারেরা; আরও উঁচুতে মেঘ, উঁচুতে পাখনা মেলা গান; মেঘেরাও নাকি এম্বুলেন্স, পেটে করে নিয়ে যায় অসুখী বাতাস তুলে, পুত্রের অসুখ থেকে ঘাম আর অবিরাম কাশির দমক নীল!

 

(২) পিতাকে ভাবছো তুমি

পিতাকে জড়িয়ে থাকে ছায়াপারানি রোদ, আর মায়া এক শূন্য ক্যালেন্ডার, ঠাঁই নেয় অযুত ঋতুর ঝড়ে!

ছুটিহীন রেলগাড়িটির নাম ধরে, পিতা ডাকছেন; ত্রুটিহীন পাঁজর বিছিয়ে দিয়ে, পিতা ডাকছেন; পৃথিবীর স্ফুটনাংকে এসে ফুটছে চাহনী তার, থৈহীন নদী, উৎরোল পারাপার!

পিতাকে ভাবছো তুমি ধীবর সাঁতারে শুয়ে; একপাশে লোহার গারদ, একপাশে ক্লান্ত কবিতা!

পিতাকে ভাবছো যেন উপচে পড়ছে মাচা; চারিদিকে আষাঢ়ের ঘের-
পুঁই ফুলে রঙ্গীন পতঙ্গ, সাইরেনে গভীর হলো জ্বর!

ছড়িয়ে পড়ছে হাওয়া, ছড়ানো মেঘের থোরে গান!
পিতাকে ঘুমন্ত দেখে এসে, বিষ ঠেকে সমস্ত প্রস্থান?

 

সাজ্জাদ সাঈফ
(কবি, অনুবাদক, চিকিৎসক)
পুরো নাম : ডা. রমজান সরকার সাজ্জাদ।

dailykagojkolom.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।