ফারজানা রাহা’র কবিতা “কেউ জানবে না”

ফারজানা রাহা

কেউ জানবে না

একটা নৈশব্দ রাত্রিতে তোমার কথা মনে পড়বে

বুকের ভিতর তীব্র ব্যথার ঝড় বইবে

মন খারাপ হবে, যোজন যোজন দুরত্ব আমাদের গিলে খাবে।

সম্পর্কটা তিক্ততায় ভরে উঠে বিচ্ছেদে বিচ্ছেদে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবো দু’টো মানুষ।

 

একটা আকাশ জানবে—মন খারাপ হবে তোমার জন্য

চাঁদনি রাতে আকাশ পানে তাকিয়ে তোমার গল্প তারাদের বলবো

বলতে গিয়ে দু’চোখ জানবে—ক’ফোটা চোখের পানির গড়াচ্ছে,

সেদিন আকাশ জানবে—দু’টো মানুষ দুইপ্রান্তে অভিমানে কাঁদছে।

একটা বিষাদময় সন্ধ্যা জানবে—আলোর প্রহর

যখন অন্ধকারে ছেয়ে যাচ্ছে

এককাপ কফি হাতে ডায়েরির পাতায় কে যেন লিখে যাচ্ছে—

‘আমাদের একটা গল্প হোক ‘।

 

অথচ সেই গল্পটা শুরু হওয়ার আগেই শেষ হয়ে যাবে—

তারা কেউই তা জানতো না।

একটা মানুষ একদিন জানবে—তার জন্য কত অবেলা

কেটে গেছে ভেজা চোখে,

কত সকাল হয়েছে মুগ্ধতার বদলে মন খারাপে।

অথচ সেই একদিন কখনো আসবে না

দু’টো মানুষ জানবেও না কেউ কারো মন খারাপের কারণ।

তবুও তারা ভালো থাকবে,

চোখ মুছবে—ভালো থাকবে…

dailykagojkolom.com এ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।